ঢাকা , শনিবার, ২২ জুন ২০২৪

অবশেষে নায়িকা তমা-মিষ্টির দ্বন্দ্বের সমাধান!

সময়ের আলোচিত নাম চিত্রনায়িকা মিষ্টি জান্নাত। পেশায় একজন দন্ত চিকিৎসকও তিনি। সম্প্রতি আরেক নায়িকা তমা মির্জা এক মন্তব্যের জেরে মিষ্টিকে ১০ কোটি টাকার আইনি নোটিশ দিয়েছিলেন।

 

যদিও মিষ্টি দাবি করেন তমা মির্জাকে নিয়ে তিনি কোনো মন্তব্য করেননি এবং তার কোনো প্রমাণও নেই। তবে তার বিরুদ্ধে আইনি নোটিশের কারণে ক্যারিয়ারে প্রভাব পড়েছে মিষ্টির। এরপর তমার বিরুদ্ধে ২০ কোটি টাকার আইনি নোটিশ পাঠান এই সুন্দরী।

 

 

ঘটনাটি শেষ পর্যন্ত বাংলাদেশ চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতি পর্যন্ত পৌঁছায়। মঙ্গলবার (২৮ মে) সভাপতি মিশা সওদাগরের সভাপতিত্বে সমিতির কার্যালয়ে তমা-মিষ্টিকে নিয়ে বৈঠক হয়। সেখানে দুজনকে মিলিয়ে দেওয়া হয়।

 

 

এ সময় মিশা সওদাগর বলেন, আগের ঘটে যাওয়া বিষয়টি ঠিক হয়নি। তারা দুজন নিজেদের ভুল বুঝতে পেরেছে। শিল্পী সমিতির মাধ্যমে এই দ্বন্দ্বের সমাধান হয়েছে।

 

 

চিত্রনায়িকা তমা মির্জা বলেন, আমরা সবাই শিল্পী। আমরা সবাই এক। আমাদের অভিভাবক শিল্পী সমিতি। তাদের মাধ্যমে পুরো বিষয়টির সুন্দর সমাধান হয়েছে।

 

 

একই সুরে মিষ্টি জান্নাত বলেন, আমাদের পাশে বাবা-মায়ের মতো অভিভাবক হিসেবে শিল্পী সমিতি রয়েছে। সমিতি আমাদের দ্বিতীয় পরিবার। তাদের উপস্থিতিতে সুন্দর সমাধান হয়েছে। তমা আপু আমার খুব কাছের। ভুল বোঝাবুঝির কারণে এমন হয়েছে। আসলে কিছু ইউটিউবারদের কারণে এই ভুল বোঝাবুঝি। আশা করব, ভবিষ্যতে ইউটিউবাররা আর উদ্ভট ক্যাপশন দেবেন না।

আপনার মন্তব্য প্রদান করুন

Your email address will not be published. Required fields are marked *

অন্য ইমেইল

অবশেষে নায়িকা তমা-মিষ্টির দ্বন্দ্বের সমাধান!

প্রকাশিত : ১১:১০:৪৬ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৮ মে ২০২৪

সময়ের আলোচিত নাম চিত্রনায়িকা মিষ্টি জান্নাত। পেশায় একজন দন্ত চিকিৎসকও তিনি। সম্প্রতি আরেক নায়িকা তমা মির্জা এক মন্তব্যের জেরে মিষ্টিকে ১০ কোটি টাকার আইনি নোটিশ দিয়েছিলেন।

 

যদিও মিষ্টি দাবি করেন তমা মির্জাকে নিয়ে তিনি কোনো মন্তব্য করেননি এবং তার কোনো প্রমাণও নেই। তবে তার বিরুদ্ধে আইনি নোটিশের কারণে ক্যারিয়ারে প্রভাব পড়েছে মিষ্টির। এরপর তমার বিরুদ্ধে ২০ কোটি টাকার আইনি নোটিশ পাঠান এই সুন্দরী।

 

 

ঘটনাটি শেষ পর্যন্ত বাংলাদেশ চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতি পর্যন্ত পৌঁছায়। মঙ্গলবার (২৮ মে) সভাপতি মিশা সওদাগরের সভাপতিত্বে সমিতির কার্যালয়ে তমা-মিষ্টিকে নিয়ে বৈঠক হয়। সেখানে দুজনকে মিলিয়ে দেওয়া হয়।

 

 

এ সময় মিশা সওদাগর বলেন, আগের ঘটে যাওয়া বিষয়টি ঠিক হয়নি। তারা দুজন নিজেদের ভুল বুঝতে পেরেছে। শিল্পী সমিতির মাধ্যমে এই দ্বন্দ্বের সমাধান হয়েছে।

 

 

চিত্রনায়িকা তমা মির্জা বলেন, আমরা সবাই শিল্পী। আমরা সবাই এক। আমাদের অভিভাবক শিল্পী সমিতি। তাদের মাধ্যমে পুরো বিষয়টির সুন্দর সমাধান হয়েছে।

 

 

একই সুরে মিষ্টি জান্নাত বলেন, আমাদের পাশে বাবা-মায়ের মতো অভিভাবক হিসেবে শিল্পী সমিতি রয়েছে। সমিতি আমাদের দ্বিতীয় পরিবার। তাদের উপস্থিতিতে সুন্দর সমাধান হয়েছে। তমা আপু আমার খুব কাছের। ভুল বোঝাবুঝির কারণে এমন হয়েছে। আসলে কিছু ইউটিউবারদের কারণে এই ভুল বোঝাবুঝি। আশা করব, ভবিষ্যতে ইউটিউবাররা আর উদ্ভট ক্যাপশন দেবেন না।