ঢাকা , সোমবার, ১৭ জুন ২০২৪

আবারও আর্জেন্টাইন তারকা ডি মারিয়াকে হত্যার হুমকি

আর্জেন্টিনার বিশ্বকাপজয়ী তারকা অ্যাঞ্জেল ডি মারিয়াকে আবারও হত্যার হুমকি দিয়েছে দুর্বৃত্তরা। নিজ জন্মস্থান রোজারিওতে দ্বিতীয় দফায় হত্যার হুমকি পেলেন এই আর্জেন্টাইন।

 

দেশটির শীর্ষস্থানীয় গণমাধ্যম মুন্দে আলবিসেলেস্তের প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়েছে। প্রতিবেদনটিতে বলা হয়, ধারাবাহিকভাবে হত্যা হুমকি পাচ্ছেন ডি মারিয়া। স্থানীয় সাংবাদিক বেলেন করভালানের বরাত দিয়ে আর্জেন্টাইন গণমাধ্যমটি জানায় বন্দুকধারীরা গুলি ছুড়ে একটি নোট রেখে যায়। যাতে লেখা, ‘আমরা আপনার জন্য অপেক্ষা করছি, ডি মারিয়া।’

 

 

গত কয়েক সপ্তাহ ধরে হুমকি পেয়ে আসছেন ৩৬ বছর বয়সী ডি মারিয়া। চলতি সপ্তাহে গুজব উঠেছে পতুর্গিজ ক্লাব বেনফিকা ছেড়ে লিওনেল মেসির সঙ্গে ইন্টার মায়ামিতে যোগ দিতে যাচ্ছেন এই আর্জেন্টাইন। এর আগে শৈশবের প্রথম ক্লাব রোজারিও সেন্ট্রালে যোগ দেওয়ার ইচ্ছে প্রকাশ করেছিলেন ডি মারিয়া। মূলত এরপর থেকে এমন হুমকি পাচ্ছেন আর্জেন্টিনার জার্সিতে সম্ভাব্য সব শিরোপাজয়ী এই ফুটবলার।

 

গত বছর মার্চে নিজ জন্মস্থান রোজারিওতে হত্যার হুমকি পেয়েছিলেন মেসি। এর ঠিক এক বছর পর, হত্যার হুমকি পান ডি মারিয়া। আর্জেন্টাইন গণমাধ্যমের উদ্ধৃতি দিয়ে এ তথ্য জানিয়েছিল বার্তা সংস্থা রয়টার্স। তারা জানায় রোজারিওতে ফিরলে পরিবারের সকল সদস্যদের সঙ্গে ডি মারিয়াকে হত্যার হুমকি দিয়েছে অজ্ঞাত দুর্বৃত্তরা।

 

 

বর্তমানে পর্তুগিজ ক্লাব বেনফিকায় খেলছেন আর্জেন্টাইন তারকা। গত সপ্তাহে তিনি শৈশবের ক্লাব রোজারিও সেন্ট্রালে খেলার ইচ্ছে প্রকাশ করেন। জানান এই ক্লাব থেকে শেষ করতে চান নিজের ফুটবল ক্যারিয়ার। এরপর থেকেই হত্যার হুমকি পাচ্ছেন ডি মারিয়া।

 

দুই তারকার জন্ম শহরের বাইরেও আরও একটি পরিচয় রয়েছে আর্জেন্টিনার উত্তর অঞ্চলের এই শহরটির। যদিও তা মোটেও ভালো পরিচয় নয়। সান্তা ফে প্রদেশের এই শহরটির মাদকসংক্রান্ত সহিংসতার জন্য কুখ্যাত।

 

 

এই শহরে নিরাপত্তাবেষ্টিত আবাসিক এলাকায় বাড়ি ডি মারিয়ার। আর্জেন্টিনায় আসলে পরিবারসহ তিনি সেখানেই ওঠেন। এই এলাকাতেই কিছু অচেনা লোককে হুমকিসংবলিত কাগজ ছুড়ে ফেলতে দেখা যায়।

 

ধূসর রঙের একটি গাড়ি থেকে ছুড়ে ফেলা সেই কাগজের লেখাগুলো ডি মারিয়ার পরিবারকে উদ্দেশ করে। সেই কাগজে লেখা, ‘আর্জেন্টাইন তারকা যদি শহরে ফেরেন, তাহলে প্রাদেশিক গভর্নরও ডি মারিয়াদের নিরাপদে রাখার নিশ্চয়তা দিতে পারবে না।’

 

 

ঠিক কী হুমকি দিয়েছে দুর্বৃত্তরা, পুলিশের বরাত দিয়ে সেই বার্তা প্রকাশ করেছে আর্জেন্টিনার একটি গণমাধ্যম। ইনফোবে নামক নিউজ পোর্টালের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ‘অ্যাঞ্জেলোকে বলো রোজারিওতে না ফিরতে। সে যদি ফেরে, পরিবারের যেকোনো একজন সদস্যকে খুন করা হবে। গর্ভনরও বাঁচাতে পারবে না। তারা শুধু কাগুজে বার্তাই ফেলে যায় না, বুলেট দিয়ে লাশও ফেলে যায়।’

 

এর আগে গত বছর আর্জেন্টিনার বিশ্বকাপজয়ী অধিনায়ক লিওনেল মেসির স্ত্রীর পরিবারের সুপারমার্কেটে বন্দুক হামলা করেছিল অজ্ঞাত সন্ত্রাসীরা। সেখানেও একটি কাগজ ফেলে যায় সেই সন্ত্রাসীরা।

 

সেই কাগজে লেখা ছিল, ‘মেসির জন্য অপেক্ষা করা হচ্ছে। রোজারিওর মেয়র পাবলো ইয়াভকিন নিজেই মাদক চোরাচালানকারী।’

 

আপনার মন্তব্য প্রদান করুন

Your email address will not be published. Required fields are marked *

অন্য ইমেইল

আবারও আর্জেন্টাইন তারকা ডি মারিয়াকে হত্যার হুমকি

প্রকাশিত : ১১:৫৫:৩৫ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ৩০ মে ২০২৪

আর্জেন্টিনার বিশ্বকাপজয়ী তারকা অ্যাঞ্জেল ডি মারিয়াকে আবারও হত্যার হুমকি দিয়েছে দুর্বৃত্তরা। নিজ জন্মস্থান রোজারিওতে দ্বিতীয় দফায় হত্যার হুমকি পেলেন এই আর্জেন্টাইন।

 

দেশটির শীর্ষস্থানীয় গণমাধ্যম মুন্দে আলবিসেলেস্তের প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়েছে। প্রতিবেদনটিতে বলা হয়, ধারাবাহিকভাবে হত্যা হুমকি পাচ্ছেন ডি মারিয়া। স্থানীয় সাংবাদিক বেলেন করভালানের বরাত দিয়ে আর্জেন্টাইন গণমাধ্যমটি জানায় বন্দুকধারীরা গুলি ছুড়ে একটি নোট রেখে যায়। যাতে লেখা, ‘আমরা আপনার জন্য অপেক্ষা করছি, ডি মারিয়া।’

 

 

গত কয়েক সপ্তাহ ধরে হুমকি পেয়ে আসছেন ৩৬ বছর বয়সী ডি মারিয়া। চলতি সপ্তাহে গুজব উঠেছে পতুর্গিজ ক্লাব বেনফিকা ছেড়ে লিওনেল মেসির সঙ্গে ইন্টার মায়ামিতে যোগ দিতে যাচ্ছেন এই আর্জেন্টাইন। এর আগে শৈশবের প্রথম ক্লাব রোজারিও সেন্ট্রালে যোগ দেওয়ার ইচ্ছে প্রকাশ করেছিলেন ডি মারিয়া। মূলত এরপর থেকে এমন হুমকি পাচ্ছেন আর্জেন্টিনার জার্সিতে সম্ভাব্য সব শিরোপাজয়ী এই ফুটবলার।

 

গত বছর মার্চে নিজ জন্মস্থান রোজারিওতে হত্যার হুমকি পেয়েছিলেন মেসি। এর ঠিক এক বছর পর, হত্যার হুমকি পান ডি মারিয়া। আর্জেন্টাইন গণমাধ্যমের উদ্ধৃতি দিয়ে এ তথ্য জানিয়েছিল বার্তা সংস্থা রয়টার্স। তারা জানায় রোজারিওতে ফিরলে পরিবারের সকল সদস্যদের সঙ্গে ডি মারিয়াকে হত্যার হুমকি দিয়েছে অজ্ঞাত দুর্বৃত্তরা।

 

 

বর্তমানে পর্তুগিজ ক্লাব বেনফিকায় খেলছেন আর্জেন্টাইন তারকা। গত সপ্তাহে তিনি শৈশবের ক্লাব রোজারিও সেন্ট্রালে খেলার ইচ্ছে প্রকাশ করেন। জানান এই ক্লাব থেকে শেষ করতে চান নিজের ফুটবল ক্যারিয়ার। এরপর থেকেই হত্যার হুমকি পাচ্ছেন ডি মারিয়া।

 

দুই তারকার জন্ম শহরের বাইরেও আরও একটি পরিচয় রয়েছে আর্জেন্টিনার উত্তর অঞ্চলের এই শহরটির। যদিও তা মোটেও ভালো পরিচয় নয়। সান্তা ফে প্রদেশের এই শহরটির মাদকসংক্রান্ত সহিংসতার জন্য কুখ্যাত।

 

 

এই শহরে নিরাপত্তাবেষ্টিত আবাসিক এলাকায় বাড়ি ডি মারিয়ার। আর্জেন্টিনায় আসলে পরিবারসহ তিনি সেখানেই ওঠেন। এই এলাকাতেই কিছু অচেনা লোককে হুমকিসংবলিত কাগজ ছুড়ে ফেলতে দেখা যায়।

 

ধূসর রঙের একটি গাড়ি থেকে ছুড়ে ফেলা সেই কাগজের লেখাগুলো ডি মারিয়ার পরিবারকে উদ্দেশ করে। সেই কাগজে লেখা, ‘আর্জেন্টাইন তারকা যদি শহরে ফেরেন, তাহলে প্রাদেশিক গভর্নরও ডি মারিয়াদের নিরাপদে রাখার নিশ্চয়তা দিতে পারবে না।’

 

 

ঠিক কী হুমকি দিয়েছে দুর্বৃত্তরা, পুলিশের বরাত দিয়ে সেই বার্তা প্রকাশ করেছে আর্জেন্টিনার একটি গণমাধ্যম। ইনফোবে নামক নিউজ পোর্টালের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ‘অ্যাঞ্জেলোকে বলো রোজারিওতে না ফিরতে। সে যদি ফেরে, পরিবারের যেকোনো একজন সদস্যকে খুন করা হবে। গর্ভনরও বাঁচাতে পারবে না। তারা শুধু কাগুজে বার্তাই ফেলে যায় না, বুলেট দিয়ে লাশও ফেলে যায়।’

 

এর আগে গত বছর আর্জেন্টিনার বিশ্বকাপজয়ী অধিনায়ক লিওনেল মেসির স্ত্রীর পরিবারের সুপারমার্কেটে বন্দুক হামলা করেছিল অজ্ঞাত সন্ত্রাসীরা। সেখানেও একটি কাগজ ফেলে যায় সেই সন্ত্রাসীরা।

 

সেই কাগজে লেখা ছিল, ‘মেসির জন্য অপেক্ষা করা হচ্ছে। রোজারিওর মেয়র পাবলো ইয়াভকিন নিজেই মাদক চোরাচালানকারী।’