ঢাকা , শনিবার, ২২ জুন ২০২৪

ব্যালট পেপারের ছবি ছড়ানো সেই ছাত্রলীগ নেতার শাস্তি

ফেনীর সোনাগাজী উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে সিলমারা ব্যালটের সঙ্গে ছবি তুলে ফেসবুকে পোস্ট করায় ইয়াকুব আলী মিশুক নামে সেই ছাত্রলীগ নেতার ৩০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে। এ ছাড়া অনাদায়ে সাত দিনের কারাদণ্ড দিয়েছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত। জুডিশিয়াল ম্যাজিন্ট্রেট সাইয়েদ মোহাম্মদ শাফায়াত হোসেনের আদালত তাকে এ সাজা দেন। দণ্ডপ্রাপ্ত ইয়াকুব আলী মিশুক উপজেলা ছাত্রলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক।

 

 

বুধবার (২৯ মে) সকালে উপজেলার চরদরবেশ ইউনিয়নের দক্ষিণ চরসাহাভিকারী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় (চাঁন মিয়ার দোকান) ভোটকেন্দ্রে ভোট দেন ইয়াকুব আলী।

 

জানা যায়, উপজেলা ছাত্রলীগের নেতা মোবাইল নিয়ে ভোটকেন্দ্রে প্রবেশ করেন। এরপর ব্যালট নিয়ে গোপন বুথে যান। সেখানে ব্যালটে সিল মারেন ও বুথের সামনেই ব্যালটসহ ছবি তুলে ব্যক্তিগত ফেসবুক আইডিতে পোস্ট করেন।

 

 

কেন্দ্রের দায়িত্বপ্রাপ্ত প্রিসাইডিং অফিসার আহসানুল বারী ভূঁইয়া বলেন, কেন্দ্রের ভেতরে বুথের সামনে সিলমারা ব্যালটের ছবি তোলার বিষয়টি জানার পর উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তার নির্দেশে ওই ছাত্রলীগ নেতাকে আটক করে পুলিশ হেফাজতে নেওয়া হয়। সন্ধ্যায় ভ্রাম্যমাণ আদালত তাকে সাজা দেন।

 

 

সোনাগাজী উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা পল্লবী চাকমা বলেন, ভোটকেন্দ্রের গোপন বুথে প্রকাশ্যে ভোট দেওয়ার ছবি তোলা বেআইনি। আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী ও প্রিসাইডিং কর্মকর্তাদের বিশেষভাবে নজর দেওয়ার কথা বলা হয়েছে এরপরও ওই ব্যক্তি কীভাবে মোবাইল ব্যবহার করছেন তা বোধগম্য নয়।

 

 

সোনাগাজী মডেল থানার ওসি সুদ্বীপ রায় বলেন, জুড়িশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেটের আদেশে ওই ছাত্রলীগ নেতাকে বুধবার সন্ধায় জেলা কারাগারে পাঠানো হয়েছে। জরিমানা পরিশোধ করে জেল থেকে বের হতে পারবেন।

 

 

আপনার মন্তব্য প্রদান করুন

Your email address will not be published. Required fields are marked *

অন্য ইমেইল

ব্যালট পেপারের ছবি ছড়ানো সেই ছাত্রলীগ নেতার শাস্তি

প্রকাশিত : ১১:৩১:২৩ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ৩০ মে ২০২৪

ফেনীর সোনাগাজী উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে সিলমারা ব্যালটের সঙ্গে ছবি তুলে ফেসবুকে পোস্ট করায় ইয়াকুব আলী মিশুক নামে সেই ছাত্রলীগ নেতার ৩০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে। এ ছাড়া অনাদায়ে সাত দিনের কারাদণ্ড দিয়েছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত। জুডিশিয়াল ম্যাজিন্ট্রেট সাইয়েদ মোহাম্মদ শাফায়াত হোসেনের আদালত তাকে এ সাজা দেন। দণ্ডপ্রাপ্ত ইয়াকুব আলী মিশুক উপজেলা ছাত্রলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক।

 

 

বুধবার (২৯ মে) সকালে উপজেলার চরদরবেশ ইউনিয়নের দক্ষিণ চরসাহাভিকারী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় (চাঁন মিয়ার দোকান) ভোটকেন্দ্রে ভোট দেন ইয়াকুব আলী।

 

জানা যায়, উপজেলা ছাত্রলীগের নেতা মোবাইল নিয়ে ভোটকেন্দ্রে প্রবেশ করেন। এরপর ব্যালট নিয়ে গোপন বুথে যান। সেখানে ব্যালটে সিল মারেন ও বুথের সামনেই ব্যালটসহ ছবি তুলে ব্যক্তিগত ফেসবুক আইডিতে পোস্ট করেন।

 

 

কেন্দ্রের দায়িত্বপ্রাপ্ত প্রিসাইডিং অফিসার আহসানুল বারী ভূঁইয়া বলেন, কেন্দ্রের ভেতরে বুথের সামনে সিলমারা ব্যালটের ছবি তোলার বিষয়টি জানার পর উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তার নির্দেশে ওই ছাত্রলীগ নেতাকে আটক করে পুলিশ হেফাজতে নেওয়া হয়। সন্ধ্যায় ভ্রাম্যমাণ আদালত তাকে সাজা দেন।

 

 

সোনাগাজী উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা পল্লবী চাকমা বলেন, ভোটকেন্দ্রের গোপন বুথে প্রকাশ্যে ভোট দেওয়ার ছবি তোলা বেআইনি। আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী ও প্রিসাইডিং কর্মকর্তাদের বিশেষভাবে নজর দেওয়ার কথা বলা হয়েছে এরপরও ওই ব্যক্তি কীভাবে মোবাইল ব্যবহার করছেন তা বোধগম্য নয়।

 

 

সোনাগাজী মডেল থানার ওসি সুদ্বীপ রায় বলেন, জুড়িশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেটের আদেশে ওই ছাত্রলীগ নেতাকে বুধবার সন্ধায় জেলা কারাগারে পাঠানো হয়েছে। জরিমানা পরিশোধ করে জেল থেকে বের হতে পারবেন।