ঢাকা , শনিবার, ২২ জুন ২০২৪

শিগগিরই কমছে না তাপদাহ

দেশের বিভিন্ন অঞ্চলে বৃষ্টি হলেও কমছে না গরম। আজ সোমবার ১০ জেলায় মৃদু তাপপ্রবাহ বয়ে যাচ্ছে এবং তা অব্যাহত থাকতে পারে। এমন পরিস্থিতিতে আবহাওয়া অধিদপ্তর বলছে, আগামী কয়েকদিনে তাপমাত্রা বাড়তে পারে। ময়মনসিংহ ও সিলেট বিভাগে আগামী বৃহস্পতিবার পর্যন্ত তিন দিনের জন্য অতিভারি বর্ষণের সতর্কতা দিয়েছে সংস্থাটি।

 

আবহাওয়াবিদরা বলছেন, সপ্তাহজুড়ে রংপুর, ময়মনসিংহ ও সিলেট বিভাগে বৃষ্টিপাতের শঙ্কা রয়েছে। এ ছাড়া উত্তরাঞ্চল ছাড়া সারা দেশে গরমের অনুভূতি বেশি থাকবে।

 

 

আবহাওয়াবিদ আবুল কালাম মল্লিক কালবেলাকে জানান, জুন থেকে সেপ্টেম্বর মাসে বর্ষাকালে টানা বৃষ্টিপাত থাকলে তাপমাত্রা কিছুটা কমে যায়। টানা বৃষ্টিপাত বলতে টানা তিন দিন থেকে সাত দিন বৃষ্টিপাত বোঝায়। কিন্তু থেমে থেমে যদি বৃষ্টিপাত হয় তাহলে এই তাপমাত্রা তেমন একটা কমে না। বৃষ্টি থেমে গেলেই আকাশ মেঘমুক্ত হয়ে পড়ে এবং সূর্যের কিরণকাল বৃদ্ধি পায়। বাতাসে জলীয় বাষ্পের পরিমাণ ৭০ থেকে ১০০ শতাংশের মধ্যে ওঠানামা করে, ফলে গরমের অনুভূতি বেশি থাকে।

 

সোমবার দেশের সর্বোচ্চ বৃষ্টিপাত হয়েছে সিলেটে ২৬৮ মিলিমিটার। ঢাকায় বৃষ্টিপাত হয়েছে এক মিলিমিটার। সর্বোচ্চ তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়েছে পাবনার ঈশ্বরদীতে ৩৭ দশমিক ২ ডিগ্রি সেলসিয়াস। এদিন ঢাকায় সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ছিল ৩৬ ডিগ্রি সেলসিয়াস।

 

 

আবহাওয়া অধিদপ্তর জানিয়েছে, রাজশাহী, পাবনা, সিরাজগঞ্জ, বগুড়া, ঢাকা, টাঙ্গাইল, ফরিদপুর, যশোর, চুয়াডাঙ্গা ও কুষ্টিয়া জেলার ওপর দিয়ে মৃদু তাপপ্রবাহ বয়ে যাচ্ছে এবং তা অব্যাহত থাকতে পারে। সোমবার সন্ধ্যা থেকে মঙ্গলবার সন্ধ্যা পর্যন্ত রংপুর, ময়মনসিংহ ও সিলেট বিভাগের অধিকাংশ জায়গায় এবং রাজশাহী, ঢাকা, খুলনা, বরিশাল ও চট্টগ্রাম বিভাগের কিছু কিছু জায়গায় অস্থায়ীভাবে দমকা হাওয়াসহ হালকা থেকে মাঝারি ধরনের বৃষ্টি/বজ্রসহ বৃষ্টি হতে পারে। সেইসঙ্গে রংপুর, ময়মনসিংহ ও সিলেট বিভাগের কোথাও কোথাও মাঝারি ধরনের ভারি থেকে ভারি বর্ষণ হতে পারে।

 

 

মঙ্গলবার সারা দেশে দিন এবং রাতের তাপমাত্রা সামান্য বৃদ্ধি পেতে পারে। বর্ধিত পাঁচ দিনে দেশের উত্তরাঞ্চলে বৃষ্টিপাতের প্রবণতা অব্যাহত থাকতে পারে। সিনপটিক অবস্থা সম্পর্কে বলা হয়েছে, দক্ষিণ-পশ্চিম মৌসুমি বায়ু বাংলাদেশের ওপর বিস্তার লাভ করেছে। লঘুচাপের বর্ধিতাংশ উত্তরপশ্চিম বঙ্গোপসাগর পর্যন্ত বিস্তৃত রয়েছে। মৌসুমি বায়ু বাংলাদেশের উপর মোটামুটি সক্রিয়, এ ছাড়া উত্তর বঙ্গোপসাগরের অন্যত্র মাঝারি অবস্থায় রয়েছে।

 

 

ভারি বর্ষণের সতর্কতা: দুটি বিভাগে তিন দিনের জন্য অতিভারি বর্ষণের সতর্কতা দিয়েছে আবহাওয়া অধিদপ্তর। আবহাওয়াবিদ খোন্দকার হাফিজুর রহমান জানান, সক্রিয় মৌসুমি বায়ুর প্রভাবে ময়মনসিংহ ও সিলেট বিভাগে সোমবার থেকে বৃহস্পতিবার সন্ধ্যা ৬টা পর্যন্ত সময়ের মধ্যে ভারি (৪৪-৮৮ মিমি/২৪ ঘণ্টা) থেকে অতি ভারি (৮৯ মিমি/২৪ ঘণ্টা) বর্ষণ হতে পারে।

 

আপনার মন্তব্য প্রদান করুন

Your email address will not be published. Required fields are marked *

অন্য ইমেইল

শিগগিরই কমছে না তাপদাহ

প্রকাশিত : ১২:৫৫:২৩ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ৪ জুন ২০২৪

দেশের বিভিন্ন অঞ্চলে বৃষ্টি হলেও কমছে না গরম। আজ সোমবার ১০ জেলায় মৃদু তাপপ্রবাহ বয়ে যাচ্ছে এবং তা অব্যাহত থাকতে পারে। এমন পরিস্থিতিতে আবহাওয়া অধিদপ্তর বলছে, আগামী কয়েকদিনে তাপমাত্রা বাড়তে পারে। ময়মনসিংহ ও সিলেট বিভাগে আগামী বৃহস্পতিবার পর্যন্ত তিন দিনের জন্য অতিভারি বর্ষণের সতর্কতা দিয়েছে সংস্থাটি।

 

আবহাওয়াবিদরা বলছেন, সপ্তাহজুড়ে রংপুর, ময়মনসিংহ ও সিলেট বিভাগে বৃষ্টিপাতের শঙ্কা রয়েছে। এ ছাড়া উত্তরাঞ্চল ছাড়া সারা দেশে গরমের অনুভূতি বেশি থাকবে।

 

 

আবহাওয়াবিদ আবুল কালাম মল্লিক কালবেলাকে জানান, জুন থেকে সেপ্টেম্বর মাসে বর্ষাকালে টানা বৃষ্টিপাত থাকলে তাপমাত্রা কিছুটা কমে যায়। টানা বৃষ্টিপাত বলতে টানা তিন দিন থেকে সাত দিন বৃষ্টিপাত বোঝায়। কিন্তু থেমে থেমে যদি বৃষ্টিপাত হয় তাহলে এই তাপমাত্রা তেমন একটা কমে না। বৃষ্টি থেমে গেলেই আকাশ মেঘমুক্ত হয়ে পড়ে এবং সূর্যের কিরণকাল বৃদ্ধি পায়। বাতাসে জলীয় বাষ্পের পরিমাণ ৭০ থেকে ১০০ শতাংশের মধ্যে ওঠানামা করে, ফলে গরমের অনুভূতি বেশি থাকে।

 

সোমবার দেশের সর্বোচ্চ বৃষ্টিপাত হয়েছে সিলেটে ২৬৮ মিলিমিটার। ঢাকায় বৃষ্টিপাত হয়েছে এক মিলিমিটার। সর্বোচ্চ তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়েছে পাবনার ঈশ্বরদীতে ৩৭ দশমিক ২ ডিগ্রি সেলসিয়াস। এদিন ঢাকায় সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ছিল ৩৬ ডিগ্রি সেলসিয়াস।

 

 

আবহাওয়া অধিদপ্তর জানিয়েছে, রাজশাহী, পাবনা, সিরাজগঞ্জ, বগুড়া, ঢাকা, টাঙ্গাইল, ফরিদপুর, যশোর, চুয়াডাঙ্গা ও কুষ্টিয়া জেলার ওপর দিয়ে মৃদু তাপপ্রবাহ বয়ে যাচ্ছে এবং তা অব্যাহত থাকতে পারে। সোমবার সন্ধ্যা থেকে মঙ্গলবার সন্ধ্যা পর্যন্ত রংপুর, ময়মনসিংহ ও সিলেট বিভাগের অধিকাংশ জায়গায় এবং রাজশাহী, ঢাকা, খুলনা, বরিশাল ও চট্টগ্রাম বিভাগের কিছু কিছু জায়গায় অস্থায়ীভাবে দমকা হাওয়াসহ হালকা থেকে মাঝারি ধরনের বৃষ্টি/বজ্রসহ বৃষ্টি হতে পারে। সেইসঙ্গে রংপুর, ময়মনসিংহ ও সিলেট বিভাগের কোথাও কোথাও মাঝারি ধরনের ভারি থেকে ভারি বর্ষণ হতে পারে।

 

 

মঙ্গলবার সারা দেশে দিন এবং রাতের তাপমাত্রা সামান্য বৃদ্ধি পেতে পারে। বর্ধিত পাঁচ দিনে দেশের উত্তরাঞ্চলে বৃষ্টিপাতের প্রবণতা অব্যাহত থাকতে পারে। সিনপটিক অবস্থা সম্পর্কে বলা হয়েছে, দক্ষিণ-পশ্চিম মৌসুমি বায়ু বাংলাদেশের ওপর বিস্তার লাভ করেছে। লঘুচাপের বর্ধিতাংশ উত্তরপশ্চিম বঙ্গোপসাগর পর্যন্ত বিস্তৃত রয়েছে। মৌসুমি বায়ু বাংলাদেশের উপর মোটামুটি সক্রিয়, এ ছাড়া উত্তর বঙ্গোপসাগরের অন্যত্র মাঝারি অবস্থায় রয়েছে।

 

 

ভারি বর্ষণের সতর্কতা: দুটি বিভাগে তিন দিনের জন্য অতিভারি বর্ষণের সতর্কতা দিয়েছে আবহাওয়া অধিদপ্তর। আবহাওয়াবিদ খোন্দকার হাফিজুর রহমান জানান, সক্রিয় মৌসুমি বায়ুর প্রভাবে ময়মনসিংহ ও সিলেট বিভাগে সোমবার থেকে বৃহস্পতিবার সন্ধ্যা ৬টা পর্যন্ত সময়ের মধ্যে ভারি (৪৪-৮৮ মিমি/২৪ ঘণ্টা) থেকে অতি ভারি (৮৯ মিমি/২৪ ঘণ্টা) বর্ষণ হতে পারে।