ঢাকা , সোমবার, ১৫ জুলাই ২০২৪

আজও চলবে কোটাবিরোধী শিক্ষার্থীদের ‘বাংলা ব্লকেড’

সরকারি চাকরিতে কোটাব্যবস্থা বাতিল করে ২০১৮ সালের পরিপত্র পুনর্বহালের দাবিতে আজ বৃহস্পতিবার (১১ জুলাই) আবারও ‘বাংলা ব্লকেড’ কর্মসূচি নিয়ে সড়কে নামবেন শিক্ষার্থীরা।

 

বৃহস্পতিবার বিকেল সাড়ে ৩টা থেকে দেশব্যাপী অবরোধ কর্মসূচি দিয়েছে আন্দোলন করা শিক্ষার্থীরা।

 

 

বুধবার (১০ জুলাই) সন্ধ্যায় শাহবাগে এ ঘোষণা দেন বৈষম্যবিরোধী ছাত্র আন্দোলনের অন্যতম সংগঠক ঢাবি শিক্ষার্থী আসিফ মাহমুদ।

 

 

তিনি বলেন, ‘বিকেল সাড়ে ৩টা থেকে দেশের আনাচকানাচে বাংলা ব্লকেড অব্যাহত রাখবে। দেশের গুরুত্বপূর্ণ পয়েন্টগুলোতে ব্লকেড পালিত হবে।

 

আসিফ মাহমুদ বলেন, আমরা নির্বাহী বিভাগকে বলতে চাই, অতি দ্রুত আমাদের দাবিটি মেনে নিন এবং যৌক্তিক সমাধান দিন। যাতে করে আমরা রাজপথ ছেড়ে পড়ার টেবিলে ফিরে যেতে পারি। আর জনদুর্ভোগেরও যেন সৃষ্টি না হয়।

 

 

লাগাতার কর্মসূচির অংশ হিসেবে আজ বৈষম্যবিরোধী ছাত্র আন্দোলনের ব্যানারে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) কেন্দ্রীয় গ্রন্থাগারের সামনে বিভিন্ন হলের শিক্ষার্থীরা জড়ো হয়ে বড় মিছিল নিয়ে ক্যাম্পাসের গুরুত্বপূর্ণ পয়েন্টগুলো প্রদক্ষিণ করে শাহবাগে গিয়ে শেষ করেন। পরে শাহবাগে অবরোধের জন্য প্রয়োজনীয় সংখ্যক শিক্ষার্থী অবস্থান করে সেখান থেকে আশপাশের এলাকায় কিছু কিছু শিক্ষার্থী চলে যান।

 

 

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় এলাকা ও রাজধানীর অন্যান্য এলাকাসহ সারাদেশেই এই অবরোধ কর্মসূচি পালন করা হয়। পরে বিকেল সাড়ে ৪টার দিকে অবরোধ ছেড়ে শাহবাগের দিকে ফিরে আসেন শিক্ষার্থীরা। সাড়ে ৭টায় পরবর্তী কর্মসূচি ঘোষণা করে শাহবাগ ছাড়েন তারা।

আপনার মন্তব্য প্রদান করুন

Your email address will not be published. Required fields are marked *

অন্য ইমেইল

আজও চলবে কোটাবিরোধী শিক্ষার্থীদের ‘বাংলা ব্লকেড’

প্রকাশিত : ১০:২৭:৫৪ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১১ জুলাই ২০২৪

সরকারি চাকরিতে কোটাব্যবস্থা বাতিল করে ২০১৮ সালের পরিপত্র পুনর্বহালের দাবিতে আজ বৃহস্পতিবার (১১ জুলাই) আবারও ‘বাংলা ব্লকেড’ কর্মসূচি নিয়ে সড়কে নামবেন শিক্ষার্থীরা।

 

বৃহস্পতিবার বিকেল সাড়ে ৩টা থেকে দেশব্যাপী অবরোধ কর্মসূচি দিয়েছে আন্দোলন করা শিক্ষার্থীরা।

 

 

বুধবার (১০ জুলাই) সন্ধ্যায় শাহবাগে এ ঘোষণা দেন বৈষম্যবিরোধী ছাত্র আন্দোলনের অন্যতম সংগঠক ঢাবি শিক্ষার্থী আসিফ মাহমুদ।

 

 

তিনি বলেন, ‘বিকেল সাড়ে ৩টা থেকে দেশের আনাচকানাচে বাংলা ব্লকেড অব্যাহত রাখবে। দেশের গুরুত্বপূর্ণ পয়েন্টগুলোতে ব্লকেড পালিত হবে।

 

আসিফ মাহমুদ বলেন, আমরা নির্বাহী বিভাগকে বলতে চাই, অতি দ্রুত আমাদের দাবিটি মেনে নিন এবং যৌক্তিক সমাধান দিন। যাতে করে আমরা রাজপথ ছেড়ে পড়ার টেবিলে ফিরে যেতে পারি। আর জনদুর্ভোগেরও যেন সৃষ্টি না হয়।

 

 

লাগাতার কর্মসূচির অংশ হিসেবে আজ বৈষম্যবিরোধী ছাত্র আন্দোলনের ব্যানারে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) কেন্দ্রীয় গ্রন্থাগারের সামনে বিভিন্ন হলের শিক্ষার্থীরা জড়ো হয়ে বড় মিছিল নিয়ে ক্যাম্পাসের গুরুত্বপূর্ণ পয়েন্টগুলো প্রদক্ষিণ করে শাহবাগে গিয়ে শেষ করেন। পরে শাহবাগে অবরোধের জন্য প্রয়োজনীয় সংখ্যক শিক্ষার্থী অবস্থান করে সেখান থেকে আশপাশের এলাকায় কিছু কিছু শিক্ষার্থী চলে যান।

 

 

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় এলাকা ও রাজধানীর অন্যান্য এলাকাসহ সারাদেশেই এই অবরোধ কর্মসূচি পালন করা হয়। পরে বিকেল সাড়ে ৪টার দিকে অবরোধ ছেড়ে শাহবাগের দিকে ফিরে আসেন শিক্ষার্থীরা। সাড়ে ৭টায় পরবর্তী কর্মসূচি ঘোষণা করে শাহবাগ ছাড়েন তারা।