ঢাকা , সোমবার, ১৫ জুলাই ২০২৪

বান্দরবানে স্কুলে যাওয়ার পথে ডুবল নৌকা, ২ শিক্ষার্থী নিখোঁজ

বান্দরবানের থানচি উপজেলায় স্কুলে যাওয়ার পথে সাঙ্গু নদীতে নৌকা ডুবে দুই স্কুল ছাত্রী নিখোঁজের খবর পাওয়া গেছে।

সোমবার (১ জুলাই) সকালে উপজেলার তিন্দু ইউনিয়নের পদ্মমুখ সংলগ্ন চিংড়ি ঝিরি এলাকায় এ ঘটনা ঘটে বলে জানিয়েছেন ওই ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ভাগ্যচন্দ্র ত্রিপুরা।

নিখোঁজরা হল: ওই ইউনিয়নের ৫ নম্বর ওয়ার্ডের হরিশ চন্দ্র পাড়া এলাকার মুতিজন ত্রিপুরার মেয়ে শান্তি রানি ত্রিপুরা (১০) এবং একই এলাকার নিলাপ্রু ত্রিপুরার মেয়ে ফুলবাণী ত্রিপুরা (৯)। শান্তি রানি ত্রিপুরা রুনাদন প্রাথমিক বিদ্যালয়ের চতুর্থ শ্রেণির ও ফুলবাণী ত্রিপুরা তৃতীয় শ্রেণিতে পড়ত।

ইউপি চেয়ারম্যান ভাগ্যচন্দ্র ত্রিপুরা বলেন, “সকাল সাড়ে ৯টার দিকে হরিশ চন্দ্রপাড়া থেকে ৫-৬ জনের সঙ্গে নৌকায় করে শান্তি রানি ত্রিপুরা ও ফুলবাণী ত্রিপুরা রুনাদন প্রাথমিক বিদ্যালয়ে যাচ্ছিল। ওই ঝিরিটির মাঝামাঝি পৌঁছালে প্রবল স্রোতে সাঙ্গু নদীতে নৌকাটি ডুবে যায়।

“এ সময় অন্যরা সাঁতার কেটে তীরে পৌঁছালেও তারা দুইজন নিখোঁজ হন।স্থানীয়রা আশপাশে এলাকায় তাদের উদ্ধার প্রক্রিয়া চালাচ্ছে। প্রচণ্ড স্রোতের কারণে খোঁজাখুঁজি করতেও সমস্যা হচ্ছে।”

থানচি ফায়ার সার্ভিস স্টেশনের ফায়ার ফাইটার লীডার পেয়ার মাহমুদ বলেন, স্থানীয়রা নৌকা ডুবে দুই শিক্ষার্থী নিখোঁজের বিষয়টি জানিয়েছে। কিন্তু বৈরী আবহাওয়ার কারণে উদ্ধার অভিযানে যাওয়া সম্ভব হয়নি।

উল্লেখ্য: বান্দরবানের থানচি সদর থেকে তিন্দুর পদ্মমুখ এলাকায় একমাত্র নৌপথে যেতে হয়। বর্ষাকালে স্রোতের কারণে নৌ চলাচলও বিপদজনক হয়ে উঠে।

আপনার মন্তব্য প্রদান করুন

Your email address will not be published. Required fields are marked *

অন্য ইমেইল

বান্দরবানে স্কুলে যাওয়ার পথে ডুবল নৌকা, ২ শিক্ষার্থী নিখোঁজ

প্রকাশিত : ১১:৫৪:৫৬ অপরাহ্ন, সোমবার, ১ জুলাই ২০২৪

বান্দরবানের থানচি উপজেলায় স্কুলে যাওয়ার পথে সাঙ্গু নদীতে নৌকা ডুবে দুই স্কুল ছাত্রী নিখোঁজের খবর পাওয়া গেছে।

সোমবার (১ জুলাই) সকালে উপজেলার তিন্দু ইউনিয়নের পদ্মমুখ সংলগ্ন চিংড়ি ঝিরি এলাকায় এ ঘটনা ঘটে বলে জানিয়েছেন ওই ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ভাগ্যচন্দ্র ত্রিপুরা।

নিখোঁজরা হল: ওই ইউনিয়নের ৫ নম্বর ওয়ার্ডের হরিশ চন্দ্র পাড়া এলাকার মুতিজন ত্রিপুরার মেয়ে শান্তি রানি ত্রিপুরা (১০) এবং একই এলাকার নিলাপ্রু ত্রিপুরার মেয়ে ফুলবাণী ত্রিপুরা (৯)। শান্তি রানি ত্রিপুরা রুনাদন প্রাথমিক বিদ্যালয়ের চতুর্থ শ্রেণির ও ফুলবাণী ত্রিপুরা তৃতীয় শ্রেণিতে পড়ত।

ইউপি চেয়ারম্যান ভাগ্যচন্দ্র ত্রিপুরা বলেন, “সকাল সাড়ে ৯টার দিকে হরিশ চন্দ্রপাড়া থেকে ৫-৬ জনের সঙ্গে নৌকায় করে শান্তি রানি ত্রিপুরা ও ফুলবাণী ত্রিপুরা রুনাদন প্রাথমিক বিদ্যালয়ে যাচ্ছিল। ওই ঝিরিটির মাঝামাঝি পৌঁছালে প্রবল স্রোতে সাঙ্গু নদীতে নৌকাটি ডুবে যায়।

“এ সময় অন্যরা সাঁতার কেটে তীরে পৌঁছালেও তারা দুইজন নিখোঁজ হন।স্থানীয়রা আশপাশে এলাকায় তাদের উদ্ধার প্রক্রিয়া চালাচ্ছে। প্রচণ্ড স্রোতের কারণে খোঁজাখুঁজি করতেও সমস্যা হচ্ছে।”

থানচি ফায়ার সার্ভিস স্টেশনের ফায়ার ফাইটার লীডার পেয়ার মাহমুদ বলেন, স্থানীয়রা নৌকা ডুবে দুই শিক্ষার্থী নিখোঁজের বিষয়টি জানিয়েছে। কিন্তু বৈরী আবহাওয়ার কারণে উদ্ধার অভিযানে যাওয়া সম্ভব হয়নি।

উল্লেখ্য: বান্দরবানের থানচি সদর থেকে তিন্দুর পদ্মমুখ এলাকায় একমাত্র নৌপথে যেতে হয়। বর্ষাকালে স্রোতের কারণে নৌ চলাচলও বিপদজনক হয়ে উঠে।