ঢাকা , সোমবার, ১৫ জুলাই ২০২৪

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় বজ্রপাতে ২ জনের মৃত্যু

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নবীনগর ও আশুগঞ্জ উপজেলায় বজ্রপাতে দুইজনের মৃত্যু হয়েছে। বৃহস্পতিবার (১৩ জুন) বিকেল ও সন্ধ্যায় পৃথক স্থানে এসব ঘটনা ঘটে।

 

স্থানীয়রা জানান, বিকেলে আশুগঞ্জের শরীফপুর ইউনিয়নের টুঙ্গীপাড়ায় গরুর বাজার থেকে ফেরার পথে বজ্রপাতে কালু মিয়া (৪৫) নামে এক ব্যক্তি নিহত হন। এ ঘটনায় আহত হয়েছেন তার সঙ্গে থাকা হোসাইন (৩২) নামে এক যুবক। তিনি সম্পর্কে নিহতের ভাতিজা।

 

 

আশুগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) নাহিদ আহমদ জানান, বাজারে গরু বিক্রি তারা বাড়িতে ফেরার পথে হঠাৎ বজ্রপাতে কালু মিয়া নিহত হন। হতাহতদের বাড়ি উপজেলার তারুয়া গ্রামে। মরদেহ পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।

 

 

সন্ধ্যায় জেলার নবীনগরে মেঘনা নদীতে বজ্রপাতে মো. জনি (২৫) বাল্কহেড নৌকার শ্রমিক নিহত হয়েছেন। উপজেলার বাইশমোজা গরুর বাজার এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে। নিহত জনি জেলার সরাইলের পানিশ্বর গ্রামের মিয়া শাহের ছেলে।

 

 

নবীনগর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) তানভীর ফরহাদ শামীম বলেন, বজ্রপাতে আহত হওয়ার পর অচেতন অবস্থায় জনিকে জেলা সদর হাসপাতালে নেওয়া হয়। সেখানে জরুরি বিভাগের চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। তার মরদেহ হাসপাতাল মর্গে রাখা হয়েছে।

 

আপনার মন্তব্য প্রদান করুন

Your email address will not be published. Required fields are marked *

অন্য ইমেইল

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় বজ্রপাতে ২ জনের মৃত্যু

প্রকাশিত : ১১:৩৫:৩৬ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৩ জুন ২০২৪

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নবীনগর ও আশুগঞ্জ উপজেলায় বজ্রপাতে দুইজনের মৃত্যু হয়েছে। বৃহস্পতিবার (১৩ জুন) বিকেল ও সন্ধ্যায় পৃথক স্থানে এসব ঘটনা ঘটে।

 

স্থানীয়রা জানান, বিকেলে আশুগঞ্জের শরীফপুর ইউনিয়নের টুঙ্গীপাড়ায় গরুর বাজার থেকে ফেরার পথে বজ্রপাতে কালু মিয়া (৪৫) নামে এক ব্যক্তি নিহত হন। এ ঘটনায় আহত হয়েছেন তার সঙ্গে থাকা হোসাইন (৩২) নামে এক যুবক। তিনি সম্পর্কে নিহতের ভাতিজা।

 

 

আশুগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) নাহিদ আহমদ জানান, বাজারে গরু বিক্রি তারা বাড়িতে ফেরার পথে হঠাৎ বজ্রপাতে কালু মিয়া নিহত হন। হতাহতদের বাড়ি উপজেলার তারুয়া গ্রামে। মরদেহ পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।

 

 

সন্ধ্যায় জেলার নবীনগরে মেঘনা নদীতে বজ্রপাতে মো. জনি (২৫) বাল্কহেড নৌকার শ্রমিক নিহত হয়েছেন। উপজেলার বাইশমোজা গরুর বাজার এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে। নিহত জনি জেলার সরাইলের পানিশ্বর গ্রামের মিয়া শাহের ছেলে।

 

 

নবীনগর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) তানভীর ফরহাদ শামীম বলেন, বজ্রপাতে আহত হওয়ার পর অচেতন অবস্থায় জনিকে জেলা সদর হাসপাতালে নেওয়া হয়। সেখানে জরুরি বিভাগের চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। তার মরদেহ হাসপাতাল মর্গে রাখা হয়েছে।