ঢাকা , সোমবার, ১৫ জুলাই ২০২৪

যুক্তরাজ্যের নতুন প্রধানমন্ত্রী কিয়ার স্টারমার

যুক্তরাজ্যের নতুন প্রধানমন্ত্রী হয়েছেন লেবার পার্টির নেতা কিয়ার স্টারমার। ব্রিটেনের রাজা দ্বিতীয় চার্লস তাকে প্রধানমন্ত্রী হিসেবে নিয়োগ দিয়েছেন।

 

শুক্রবার (০৫ জুলাই) বিবিসির এক প্রতিবেদেনে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

 

 

বিবিসি জানিয়েছে, যুক্তরাজ্যের নির্বাচনের নিরঙ্কুশ সংখ্যাগরিষ্ঠতা পেয়েছে স্টারমারের দল লেবার পার্টি। নির্বাচনে সংখ্যাগরিষ্ঠতা পাওয়ার পর শুক্রবার বাকিংহাম প্রাসাদে রাজার সঙ্গে দেখা করতে গেলে তিনি স্টারমারকে প্রধানমন্ত্রী নিয়োগ দেন।

 

রাজ প্রাসাদে প্রবেশের পর স্টারমারের রাজা চার্লসের সঙ্গে করমর্দনের একটি ছবি ছড়িয়ে পড়েছে।

 

 

যুক্তরাজ্যে গতকাল বৃহস্পতিবার সাধারণ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়েছে। এ নির্বাচনে ৬৫০টি আসনের মধ্যে লেবার পার্টি পেয়েছে ৪১২টি আসন। অন্যদিকে ক্ষমতাসীন দল কনজারভেটিভ পার্টি পেয়েছে ১২১টি আসন। দেশটিতে সংখ্যাগরিষ্ঠতার জন্য প্রয়োজন হয় ৩২৬টি আসন।

 

দেশটিতে টানা ১৪ বছর ক্ষমতায় ছিল কনজারভেটিভ পার্টি। তবে এবারের নির্বাচনে দলটির ভরাডুবি হয়েছে। এরপর পদত্যাগের ঘোষণা দিয়েছেন কনজারভেটিভ নেতা ঋষি সুনাক।

 

 

লেবারপার্টির নেতা কিয়ার স্টারমার বলেছেন, এখন থেকেই পরিবর্তন শুরু হলো। জনগণের উদ্দেশ্যে তিনি বলেন, আমি আনন্দিত।

 

 

নির্বাচনে নিজের পরাজয় স্বীকার করে নিয়েছেন সুনাক। তিনি ফলাফলে দুঃখপ্রকাশ করে দায় নিজের কাঁধে নিয়ে বলেন, অনেক কিছু শেখার আছে।

 

আপনার মন্তব্য প্রদান করুন

Your email address will not be published. Required fields are marked *

অন্য ইমেইল

যুক্তরাজ্যের নতুন প্রধানমন্ত্রী কিয়ার স্টারমার

প্রকাশিত : ০৮:২২:৪২ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ৫ জুলাই ২০২৪

যুক্তরাজ্যের নতুন প্রধানমন্ত্রী হয়েছেন লেবার পার্টির নেতা কিয়ার স্টারমার। ব্রিটেনের রাজা দ্বিতীয় চার্লস তাকে প্রধানমন্ত্রী হিসেবে নিয়োগ দিয়েছেন।

 

শুক্রবার (০৫ জুলাই) বিবিসির এক প্রতিবেদেনে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

 

 

বিবিসি জানিয়েছে, যুক্তরাজ্যের নির্বাচনের নিরঙ্কুশ সংখ্যাগরিষ্ঠতা পেয়েছে স্টারমারের দল লেবার পার্টি। নির্বাচনে সংখ্যাগরিষ্ঠতা পাওয়ার পর শুক্রবার বাকিংহাম প্রাসাদে রাজার সঙ্গে দেখা করতে গেলে তিনি স্টারমারকে প্রধানমন্ত্রী নিয়োগ দেন।

 

রাজ প্রাসাদে প্রবেশের পর স্টারমারের রাজা চার্লসের সঙ্গে করমর্দনের একটি ছবি ছড়িয়ে পড়েছে।

 

 

যুক্তরাজ্যে গতকাল বৃহস্পতিবার সাধারণ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়েছে। এ নির্বাচনে ৬৫০টি আসনের মধ্যে লেবার পার্টি পেয়েছে ৪১২টি আসন। অন্যদিকে ক্ষমতাসীন দল কনজারভেটিভ পার্টি পেয়েছে ১২১টি আসন। দেশটিতে সংখ্যাগরিষ্ঠতার জন্য প্রয়োজন হয় ৩২৬টি আসন।

 

দেশটিতে টানা ১৪ বছর ক্ষমতায় ছিল কনজারভেটিভ পার্টি। তবে এবারের নির্বাচনে দলটির ভরাডুবি হয়েছে। এরপর পদত্যাগের ঘোষণা দিয়েছেন কনজারভেটিভ নেতা ঋষি সুনাক।

 

 

লেবারপার্টির নেতা কিয়ার স্টারমার বলেছেন, এখন থেকেই পরিবর্তন শুরু হলো। জনগণের উদ্দেশ্যে তিনি বলেন, আমি আনন্দিত।

 

 

নির্বাচনে নিজের পরাজয় স্বীকার করে নিয়েছেন সুনাক। তিনি ফলাফলে দুঃখপ্রকাশ করে দায় নিজের কাঁধে নিয়ে বলেন, অনেক কিছু শেখার আছে।