ঢাকা , সোমবার, ১৫ জুলাই ২০২৪

যেসব কোম্পানির হাতে বিশ্বের কলকাঠি

বিশ্বের শীর্ষ কোম্পানিগুলোর নিয়ন্ত্রণ থাকে শীর্ষ ধনীদের হাতে। আর তাতেই ফুলেফেঁপে উঠেন তারা। বিশ্ব অর্থনীতির কলকাঠি নাড়া শীর্ষ কোম্পানিগুলোর তালিকা নিয়ে তাই মানুষের জল্পনা-কল্পনারও অন্ত নেই।

 

যুগের সঙ্গে তাল মিলিয়ে নিত্য নতুন ব্যবসায়িক আবিষ্কার, কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা ও উন্নত প্রযুক্তি নিয়ে বাজিমাত করে চলছে কোম্পানিগুলো।

 

 

সম্প্রতি মাইক্রোসফটের মতো কোম্পানিকে পেছনে ফেলে বিশ্বের শীর্ষ কোম্পানি হিসেবে নাম লিখিয়েছিল মাইক্রোচিপ উৎপাদনকারী প্রতিষ্ঠান এনভিডিয়া। কিন্তু চোখের পলকে এনভিডিয়াকে হটিয়ে আবারও আসনটি দখলে নিয়েছে মাইক্রোসফট।

 

জেনে নেওয়া যাক বর্তমানে বিশ্বের সবচেয়ে দামি কোম্পানির তালিকায় কোন কোন প্রতিষ্ঠান রয়েছে।

 

 

তালিকার ১০ নম্বরে রয়েছে বিশ্বের অন্যতম বৃহৎ ওষুধ কোম্পানি এলি লিলি । বিশ্বের ১৩টি দেশে তাদের ওষুধ উৎপাদন কারখানা আছে। বর্তমানে এর বাজার মূলধন ৮৪ হাজার ৪ কোটি ডলার।

 

তারপরই আছে, বার্কশায়ার হ্যাথাওয়ে। বর্তমানে এর বাজার মূলধন ৮৮ হাজার ৪৭৯ কোটি ডলার। আর্থিক খাত, জ্বালানি সরবরাহ, উৎপাদন, খুচরা–পাইকারি বিক্রয়সহ বিভিন্ন খাতে ব্যবসা আছে এই কোম্পানিটির ।

 

 

তালিকার অষ্টম স্থানে রয়েছে তাইওয়ানের চিপ উৎপানকারী প্রতিষ্ঠান টিএসএমসি। এটি বিশ্বের তৃতীয় বৃহত্তম চিপ উৎপাদনকারী কোম্পানি। বর্তমানে এর বাজার মূলধন ৯০ হাজার ২২৩ কোটি ডলার। সপ্তম স্থানে রয়েছে ফেসবুকের মূল প্রতিষ্ঠান মেটা। বর্তমানে এর বাজার মূলধন ১ লাখ ২৫ হাজার কোটি ডলার।

 

তালিকার ষষ্ঠ স্থানে রয়েছে সৌদি তেল কোম্পানি আরামকো। বর্তমানে এর বাজার মূলধন ১ লাখ ৭৮ হাজার কোটি ডলার। তারপর পঞ্চম স্থানে আছে অ্যামাজনের অবস্থান । অনলাইনে বই বিক্রি দিয়ে ব্যবসা শুরু করা অ্যামাজনের বাজার মূলধন এখন ১ লাখ ৯৬ হাজার কোটি ডলার।

 

তালিকার চতুর্থ অবস্থানে রয়েছে সার্চ ইঞ্জিন গুগলের মূল প্রতিষ্ঠান অ্যালফাবেট। বর্তমানে এর বাজার মূলধন ২ লাখ ২১ হাজার কোটি ডলার। গত সপ্তাহে বিশ্বের সবচেয়ে দামি কোম্পানির আসনে উঠে আসে চিপ নির্মাতা কোম্পানি এনভিডিয়া। বর্তমানে এর বাজার মূলধন ৩ লাখ ১১ হাজার কোটি ডলার।

 

বিশ্বব্যাপী ধনী কোম্পানিগুলোর তালিকায় দ্বিতীয় অবস্থানে রয়েছে মার্কিন প্রযুক্তি প্রতিষ্ঠান অ্যাপল। বর্তমানে এর বাজার মূলধন ৩ লাখ ১৮ হাজার কোটি ডলার। ২০২২ সালে বিশ্বের ইতিহাসে তারা প্রথম কোম্পানি হিসেবে ৩ লাখ কোটি ডলারের মাইলফলক স্পর্শ করে।

 

 

বৈশ্বিক ধনী প্রতিষ্ঠানগুলোর তালিকায় শীর্ষ অবস্থানে রয়েছে মাইক্রোসফট। চলতি বছর কোম্পানিটির বাজার মূলধন ছাড়ায় ৩ লাখ ৩৪ হাজার কোটি ডলার।

 

আপনার মন্তব্য প্রদান করুন

Your email address will not be published. Required fields are marked *

অন্য ইমেইল

যেসব কোম্পানির হাতে বিশ্বের কলকাঠি

প্রকাশিত : ০৯:৪০:০৬ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৫ জুন ২০২৪

বিশ্বের শীর্ষ কোম্পানিগুলোর নিয়ন্ত্রণ থাকে শীর্ষ ধনীদের হাতে। আর তাতেই ফুলেফেঁপে উঠেন তারা। বিশ্ব অর্থনীতির কলকাঠি নাড়া শীর্ষ কোম্পানিগুলোর তালিকা নিয়ে তাই মানুষের জল্পনা-কল্পনারও অন্ত নেই।

 

যুগের সঙ্গে তাল মিলিয়ে নিত্য নতুন ব্যবসায়িক আবিষ্কার, কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা ও উন্নত প্রযুক্তি নিয়ে বাজিমাত করে চলছে কোম্পানিগুলো।

 

 

সম্প্রতি মাইক্রোসফটের মতো কোম্পানিকে পেছনে ফেলে বিশ্বের শীর্ষ কোম্পানি হিসেবে নাম লিখিয়েছিল মাইক্রোচিপ উৎপাদনকারী প্রতিষ্ঠান এনভিডিয়া। কিন্তু চোখের পলকে এনভিডিয়াকে হটিয়ে আবারও আসনটি দখলে নিয়েছে মাইক্রোসফট।

 

জেনে নেওয়া যাক বর্তমানে বিশ্বের সবচেয়ে দামি কোম্পানির তালিকায় কোন কোন প্রতিষ্ঠান রয়েছে।

 

 

তালিকার ১০ নম্বরে রয়েছে বিশ্বের অন্যতম বৃহৎ ওষুধ কোম্পানি এলি লিলি । বিশ্বের ১৩টি দেশে তাদের ওষুধ উৎপাদন কারখানা আছে। বর্তমানে এর বাজার মূলধন ৮৪ হাজার ৪ কোটি ডলার।

 

তারপরই আছে, বার্কশায়ার হ্যাথাওয়ে। বর্তমানে এর বাজার মূলধন ৮৮ হাজার ৪৭৯ কোটি ডলার। আর্থিক খাত, জ্বালানি সরবরাহ, উৎপাদন, খুচরা–পাইকারি বিক্রয়সহ বিভিন্ন খাতে ব্যবসা আছে এই কোম্পানিটির ।

 

 

তালিকার অষ্টম স্থানে রয়েছে তাইওয়ানের চিপ উৎপানকারী প্রতিষ্ঠান টিএসএমসি। এটি বিশ্বের তৃতীয় বৃহত্তম চিপ উৎপাদনকারী কোম্পানি। বর্তমানে এর বাজার মূলধন ৯০ হাজার ২২৩ কোটি ডলার। সপ্তম স্থানে রয়েছে ফেসবুকের মূল প্রতিষ্ঠান মেটা। বর্তমানে এর বাজার মূলধন ১ লাখ ২৫ হাজার কোটি ডলার।

 

তালিকার ষষ্ঠ স্থানে রয়েছে সৌদি তেল কোম্পানি আরামকো। বর্তমানে এর বাজার মূলধন ১ লাখ ৭৮ হাজার কোটি ডলার। তারপর পঞ্চম স্থানে আছে অ্যামাজনের অবস্থান । অনলাইনে বই বিক্রি দিয়ে ব্যবসা শুরু করা অ্যামাজনের বাজার মূলধন এখন ১ লাখ ৯৬ হাজার কোটি ডলার।

 

তালিকার চতুর্থ অবস্থানে রয়েছে সার্চ ইঞ্জিন গুগলের মূল প্রতিষ্ঠান অ্যালফাবেট। বর্তমানে এর বাজার মূলধন ২ লাখ ২১ হাজার কোটি ডলার। গত সপ্তাহে বিশ্বের সবচেয়ে দামি কোম্পানির আসনে উঠে আসে চিপ নির্মাতা কোম্পানি এনভিডিয়া। বর্তমানে এর বাজার মূলধন ৩ লাখ ১১ হাজার কোটি ডলার।

 

বিশ্বব্যাপী ধনী কোম্পানিগুলোর তালিকায় দ্বিতীয় অবস্থানে রয়েছে মার্কিন প্রযুক্তি প্রতিষ্ঠান অ্যাপল। বর্তমানে এর বাজার মূলধন ৩ লাখ ১৮ হাজার কোটি ডলার। ২০২২ সালে বিশ্বের ইতিহাসে তারা প্রথম কোম্পানি হিসেবে ৩ লাখ কোটি ডলারের মাইলফলক স্পর্শ করে।

 

 

বৈশ্বিক ধনী প্রতিষ্ঠানগুলোর তালিকায় শীর্ষ অবস্থানে রয়েছে মাইক্রোসফট। চলতি বছর কোম্পানিটির বাজার মূলধন ছাড়ায় ৩ লাখ ৩৪ হাজার কোটি ডলার।